,

ThemesBazar.Com

বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালিয়ে মানুষ মারলে তাঁদের মৃত্যুদণ্ডই হওয়া উচিত: এরশাদ

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো যৌক্তিক বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। তিনি বলেন, তারা তো নিজের জন্য কিছু চায়নি। তাদের আন্দোলন সরকার পতনের আন্দোলন নয়। তারা চেয়েছে নিরাপদ সড়ক।

 

বাসচাপায় নিহত দিয়া খানমের পরিবারকে সান্ত্বনা জানাতে আজ শুক্রবার সকালে তাদের মহাখালীর বাড়িতে গিয়ে সেখানে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন এরশাদ। সড়কে মৃত্যুর ঘটনায় নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের নানা মন্তব্যের সমালোচনা করেন এরশাদ। তিনি বলেন, ‘শাজাহান খানের হাসি দেখে দুঃখ পেয়েছি। একটা ছেলে মারা গেছে, একটা মেয়ে মারা গেছে। তিনি হাসিমুখে ঘটনাকে তুলনা করছেন ভারতের দুর্ঘটনার সঙ্গে। এই যদি তাঁর প্রতিক্রিয়া, কী বলার আছে।’

 

সড়ক পরিবহন আইনকে আরও কঠোর করার দাবি জানিয়ে এরশাদ বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি থাকতে আমি মৃত্যুদণ্ডের আইন করেছিলাম। কিন্তু আন্দোলনের কারণে আইনটি পরে বাতিল করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড করা হয়েছে। কিন্তু যারা সড়কে বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালিয়ে মানুষ মারবে, তাদের মৃত্যুদণ্ডই হওয়া উচিত।’

 

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত বলেন, ‘আমার ছেলে যদি আজকে গাড়িতে করে স্কুলে যেত, সর্বক্ষণ আমি চিন্তায় থাকতাম ছেলে বাসায় ফিরবে কি না। মৃত্যু দেখলে তো আমি আত্মহত্যা করতাম। মৃত ছেলের মুখ দেখতে চাই না আমি।’

ThemesBazar.Com

     আরও সংবাদ