,

ThemesBazar.Com

লডারহিল যেন সাকিবদের মিরপুরই

প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে খেলতে গিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম সফরেই দুর্দান্ত ফল, উইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেছেন সাকিবরা। দলকে উৎসাহ দিতে যুক্তরাষ্ট্রে অঙ্গরাজ্য থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ঢল নেমেছিল ফ্লোরিডায়। বিপুলসংখ্যক প্রবাসীর এই উপস্থিতি অভিভূত করেছে দলকে। সাকিব বলছেন, রীতিমতো দ্বাদশ খেলোয়াড়ের ভূমিকা রেখেছেন দর্শকেরা।

 

প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশ খেলতে যাবে, আগ থেকেই এ নিয়ে বেশ আগ্রহ তৈরি হয়েছিল দেশের ক্রিকেটে। ফ্লোরিডায় বাংলাদেশ দলকে সমর্থন জানাতে বিপুলসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি আসবেন, আগ থেকে অনুমান করা যাচ্ছিল। সত্যি তা–ই হলো, বাংলাদেশ দলকে সমর্থন দিতে লডারহিলে দর্শকদের যে স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি, সাকিবদের মনে হয়েছে, তাঁরা বুঝি মিরপুরেই খেলছেন।

 

তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে যুক্তরাষ্ট্র অভিযান শুরু করেছিল বাংলাদেশ। ফ্লোরিডার লডারহিলে এসেই সাকিবরা দেখা দিলেন অন্য চেহারায়। বাংলাদেশকে সমর্থন দিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ঢল নেমেছিল ফ্লোরিডায়। লডারহিলের গ্যালারি পরিণত হয়েছিল এক টুকরো বাংলাদেশে। লাল-সবুজ পতাকা, জার্সি, বাংলায় লেখা প্ল্যাকার্ড, এমনকি স্টেডিয়ামে বাংলা গান, কে বলবে এটা ফ্লোরিডা! পনেরো-বিশ হাজার ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়াম অনেকটাই পূর্ণ। আর তাতে বাংলাদেশের সমর্থকদের আধিক্য।

পেছনে যদি দর্শকদের বিপুল সমর্থন থাকে, খেলোয়াড়েরা এমনিই উজ্জীবিত হন। সাকিবরাও হয়েছেন। তাই তো পিছিয়ে পড়ার পরও দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেছেন, ‘দর্শকদের সমর্থন বিরাট ব্যাপার। কখনোই মনে হয়নি, আমরা দেশের বাইরে খেলছি। মনে হচ্ছে, বাংলাদেশে খেলছি।’

 

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি জিতে বাংলাদেশ অধিনায়কের আশা ছিল, সিরিজনির্ধারণী ম্যাচেও বিপুল বাংলাদেশি দর্শক আসবে। এসেছেও। সাকিবদের অকুণ্ঠ সমর্থন জানিয়েছে। দর্শকদের ভালোবাসার জবাব বাংলাদেশ দিয়েছে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে, ম্যাচের পর ‘ল্যাপ অব অনার’ দিয়ে। দর্শকেরা যেভাবে অনুপ্রাণিত করেছে, ম্যাচ শেষে সাকিব কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে ভোলেননি, ‘কখনোই মনে হয়নি আমরা দেশের বাইরে খেলছি। দর্শকদের ধন্যবাদ। তারা আমাদের দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে উপস্থিত ছিল মাঠে।’

 

শুধু খেলার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকেনি দর্শকেরা; দেশের চলমান আন্দোলন স্পর্শ করছে সাত সমুদ্র ওপারে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদেরও। আন্দোলনের সমর্থনে পোস্টার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে হাজির হয়েছেন, স্লোগান দিয়েছেন। জানিয়ে দিয়েছেন, ‘বাংলাদেশে নিরাপদ সড়ক চাই’। মার্কিন মুলুকে প্রথমবারের খেলতে যাওয়া, উইন্ডিজের বিপক্ষে দুর্দান্ত সিরিজ জয়—স্মরণীয় হয়ে থাকল বাংলাদেশ দলের যুক্তরাষ্ট্র সফরটা।

ThemesBazar.Com

     আরও সংবাদ